রোগা পাতলা শরীর থেকে মুক্তির সহজ উপায় ?

রোগা পাতলা শরীর থেকে মুক্তির সহজ উপায় ?

আসসালামু আলাইকুম,

আজ আমি আপনাদের বলবো রোগা পাতলা শরীর থেকে মোটা ও আকর্ষণীয় হয়ে ওটার সহজ কিছু উপায়।আমরা ছেলে এবং মেয়ে উভয়েই রোগা ও পাতলা শরীর নিয়ে চিন্তিত থাকি।কারো সামনে যেতেও লজ্জায় পড়তে হয়। প্রতি দিন সকাল বিকাল খাবার খেয়েও আমাদের স্বাস্থ্যের কোনও উন্নতি হয় না। এমন অনেক এই আছেন যারা স্বাভাবিক এর চেয়েও বেশি পাতলা হয়,
আজকের হেল্থ টিপস আপনার জন্য। আজ আমি আপনাদের বলবো কোন ধরণের খাবার খেলে আপনার ওজন বৃদ্দি পাবে,এবং সকাল থাকে রাত পর্যন্ত কি কি ডায়েট চার্ট অনুসরণ করবেন।
সব শেষ থাকছে আপনি আপনার ওজন কতটা বাড়াবেন আর কি ভাবে?

ওজন কেন বাড়ে না?

আমি যদি ওজন না বাড়ার কারণ বলতে চাই তাহলে বলবো তার কারণ আপনার শরীর এর মধ্যে লুকিয়ে থাকা বিভিন্ন ড্রোনের রোগ। তার মধ্যে রয়েছে থাইরয়েড হাই ,সুগার ,গ্যাস সোহো পেটের ভিবিন্ন দরের সমস্যা বা শরীরে অন্য কোনও সমস্যা আছে তারা চাইলেও তাদের পাতলা রোগা শরীর থাকে নিস্তার পাবেন না।

তাই আমি বলবো ডাক্তার এর চিকিৎসা গ্রহণ করার পর এই আপনি আপনার শরীর এর ওজন বা শাস্ত নিয়ে ভাবুন।

তবে আপনি যদি মনে করেন আপনার শরীর সম্পূর্ণ সুস্থ তবে আপনি অবশ্যই আপনার কাঙ্কিত স্বাস্থ্যের অদিকারী হবেন।

সুগার এবং হাই থাইরোয়েডিজম এই ২টা কারো শরীরে থাকলে তার শরীর শুকিয়ে যাবে এবং পেট বব হতে থাকবে।

আমাদের ওজন না বাড়ার পিছনে আরো একটা কারণ হলো ডায়েট ,আমরা সবাই কম বেশি ডায়েট করি কিন্তু সেটা ভুল সময় অথবা ভুল খাবার দিয়ে করি। যার কারণ হিসাবে আমাদের টিক মতো গুম হয় না,মনে রাখবেন ঘুম কম হলে সেটা আমাদের শরীর এর উপর প্রভাব ফেলে। ঘুম আমাদের শরীর এর বিভিন্ন রোগ প্রতিরুদ এ সাহায্য করে।

আমরা প্রতি দিন যে সব খাবার খাই তার উপকারিতা আমাদের শরীরে তখনি লক্ষ করি যখন আমার ঘুম পরিপূর্ণ হয়। গুম যদি পরিপূণ না হয় তবে যতই খাবার খান তা কোনও উপকারে আসবে না।

রোগা পাতলা দূর করা;

আমরা পাতলা বা মোটা যেতাই হতে চাই তার জন্য আমাদের ওর্য়াক আউট প্রয়োজন।আমরা অনেক এই ভাবি মোটেও হওয়া মানে চর্বি বেড়া যাওয়া। না এটা ভুল। মোটা হওয়া মানে হলো আপনার প্রোটিন এর মাত্রা বাড়াবেন এবং পেশী মোটা করবেন।

মোটা হবার জন্য অবশ্যই ওয়ার্ক আউট করতে হবে। প্রতি দিন কম করে ৩০ মিনিট এবং বাসি হলে ৬০ মিনিট করুন,তার পর অবসসই ৪/৫টা ডিম এর সাদা অংশ খাবেন তার শটে বিভিন্ন ধরণের ফল খেতে পারেন।সামর্থ থাকলে প্রোটিন এর বিভিন্ন ড্রিঙ্কস খেতে পারেন শটে ফল রাখতে পারেন।

পানি;

আমরা প্রতি দিন কম বেশি পানি সবাই পান করি। অনেক এই ভাবতে ওয়ারেন পানি খাবার সাথে আমাদের ওজন বাড়ার কি সম্পর্ক?
আমরা প্রতি দিন যে পরিমান খাবার খাই তা হজম এর জন্য পানি প্রয়োজন,পানি ছাড়া আমাদের হজম শক্তি কমে যায় তাই পানি অনেক প্রয়োজনীয়। প্রতি দিন কম করে ২ লিটার পানি পান করেন তাহলে আপনার খাবার হজম হবে,পুষ্টিগুণ আপনার দেহে সঠিক মাত্রায় কাজ করবে,বদহজম থাকে রাখা করবে,

সকাল থেকে রাত পর্যন্ত খাবার তালিকাঃ

খাবার আমাদের মোটা হবে মূল চাবিকাঠি।যদি আপনি মোটা হতে চান তাহলে অবসসই আপনার খাবারে প্রচুর ক্যালোরি থাকতে হবে শটে প্রোটিন এর উপস্তিতি থাকতে হবে।

সকাল এর খাবার;

যে সব খাবার এর মধ্যে কমপ্লেক্স কার্বোহাইড্রেড বাসি আছে সে খাবার ক্ষোভের চেষ্টা করবেন।

১ কাপ ওস
১ গ্লাস দুধ
১ পিস্ পাকা কলা

এক সাথে মেখে প্রতি দিন খাবেন। এখানে হাই প্রোটিন,হাই কার্বোহাইড্রেড ,হেলথি ফ্যাটস আছে যা আপনার শরীর এর ওজন বাড়াতে সাহায্য করবে।

স্ন্যাকস,

সকাল এর খাবার এর পর স্ন্যাকস এর মধ্যে আপনারে ২ তা সিদ্দ ডিম্,পনির এর তরকারি দিয়ে রুটি খাতে পারেন,সিদ্দ বা ভিজিয়ে রাকা চুলা খেতে পারেন শটে কোলা বা আমি খেতে পারেন। এই খাবার গুলু আপনাদের ওজন বৃদ্দি করতে দ্রুত সাহায্য করবে।

দুপুর এর খাবার;

অল্প ভাত সাথে পনির এর তরকারি,সয়াবিন ,সয়াবিন এর মধ্যে ওদিক পরিমানে প্রোটিন থাকে। যা আপনাদের ওজন বাড়াতে সাহায্য করবে।খাবার শেষে অবশ্যই দই খেতে হবে। মিষ্টি বা টক যে কোনও একটা খেলেই হবে।

এর সাথে মুরগির ব্রেস্ট এর অংশ,মাছ ডিম্ খাবার চেষ্টা করবেন। এবং প্রোটিন জাতীয় খাবার বাসি করে খাবার চেস্টা করবেন।

রাতের খাবার;

রাতের খাবারে সালাত অবশ্যই খাবেন। রাত এর খাবারে রুটি ভাত সাথে পনির এর তরকারি খেতে পারেন।দই খাবেন,গুমাতে যাবার আগে অবশ্যই ১গ্লাস দুধ খাবেন।এতে করে আপনার ঘুম ভালো হবে সাথে ওজন এর কথা তো বললাম।
প্রতি দিন বাসি করে পানি খাবেন জোত সম্ভব ক্যালোরি তা মেপে নিবেন।

সব শেষ ওজন বাড়ানো মানে যে আমরা খুব ভালো কাজ করছি তা কিন্তু না,আমি বলবো পাতলা শরীর অনেক ভালো তবে বাসি পাতলা হলে অবশ্যই অল্প একটু বাড়িয়ে নিতে পারেন।অতিরিক্ত ওজন বাড়লে আপনার শরীর এর মধ্যে বিভিন্ন রোগ বাসা বাঁধতে পারে তাই অতিরিক্ত ক্যালোরি যুক্ত খাবার থেকে বিরত থাকবেন প্রতিজ যুক্ত খাবার বেশি করে খাবেন।
অবশ্যই আমরা চর্বি যুক্ত শরীর তৈরি থেকে বিরত থাকুন পেশিবহুল শরীর তৈরি করুন।
যা আপনাকে শক্তি শালী বানাবে এবং দেখতে অনেক আকর্ষণীয় বানাবে।
আসা করি আজকের এই হেলথ টিপস আপনাদের সকল এর অনেক উপকারে আসবে।সুস্থ শরীর সুন্দর মন।

Check Also

ফার্মাসিস্ট কোর্স করার নিয়ম

ফার্মাসিস্ট কোর্স করার নিয়ম

ফার্মাসিস্ট কোর্স করার নিয়ম

Leave a Reply

Your email address will not be published.