এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) ৩য় সপ্তাহের কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি-1 এসাইনমেন্ট সমাধান ( ২য় পত্র)

এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) ৩য় সপ্তাহের কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি-1 এসাইনমেন্ট সমাধান ( ২য় পত্র)

এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) এসাইনমেন্ট ২০২১ উত্তর /সমাধান ৩য় সপ্তাহের কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি-১ (এসাইনমেন্ট ৩) | ২০২১ সালের এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) ৩য় সপ্তাহের কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি-১ এসাইনমেন্ট সমাধান ( ২য় পত্র)।

সূচিপত্র

SSC DAKHIL VOCATIONAL ASSIGNMENT ANSWER 2021

এসএসসি ভোকেশনাল এসাইনমেন্ট ২০২১ এর সকল বিষয়বস্তু ও উত্তর ;

এসএসসি পরিক্ষা ২০২১ এর শিক্ষার্থীদের জন্য এসাইনমেন্ট

বিষয়ঃ কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি-১
পত্রঃ ২য় পত্র।
বিষয় কোডঃ৬৮২৩
স্তরঃ এসএসসি/ দাখিল (ভোকেশনাল)
শ্রেনীঃ দশম
সপ্তাহঃ ৩য়
এসাইনমেন্ট নংঃ ০৩
এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) ৩য় সপ্তাহের কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি-১ এসাইনমেন্ট

এসএসসি/দাখিল (ভোকেশনাল) ৩য় সপ্তাহের কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি-১ এসাইনমেন্ট- ২য় পত্রের সকল প্রশ্ন পাঠ্যবইয়ের ২য় অধ্যায় – “ডাটা টাইপ, ফিল্ড প্রোপারটিস, এবং টেবিল তৈরি ” হতে করা হয়েছে।

সুতরাং আপনি চাইলে বই থেকেও উত্তর খুঁজে নিতে পারবেন। আপনাদের সুবিধার্থে আমরা অ্যাসাইনমেন্টের সকল উত্তর বই থেকে সংগ্রহ করে এই ওয়েবসাইটে লেখা ও ছবির মাধ্যমে পাবলিশ করেছি।

এখান থেকে কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি-১ এসাইনমেন্ট সমাধান শুরু…

কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি-১ এসাইনমেন্ট সমাধান-এ যা যা থাকছে;

  1. ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের প্রাথমিক ধারনা
  2. ডাটাবেজের প্রকারভেদ বর্ণনা
  3. ডাটা টাইপ বর্ণনা
  4. ফিল্ড প্রোপারটিজ

উপরিউক্ত অ্যাসাইনমেন্ট এর উত্তর নিচে ধারাবাহিকভাবে দেওয়া হয়েছে।

ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম কি ?

ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সংক্ষেপে (DBMS) হচ্ছে পরস্পর সম্পর্কযুক্ত তথ্য এবং সে তথ্য পর্যালোচনা করার জন্য প্রয়োজনীয় প্রোগ্রামের সমষ্টি। ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমে বিভিন্ন এ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রাম থাকে। যেমন; ডিবিএমএস ডাটাবেজ তৈরি, এ্যাকসেস করা এবং তা রক্ষণাবেক্ষণের যাবতীয় কার্যাবলি সম্পাদন করে থাকে।

ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (DBMS) ব্যবহারকারী এবং ডাটাবেজের মধ্যে সমন্বয়কারী হিসেবে কাজ করে। বর্তমানে বিভিন্ন ধরনের ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম কম্পিউটারে ব্যবহার করা হয় । যেমন- ওরাকল (Oracle), মাইএসকিউএল (MySQL), এসকিউএল (SQL), মঙ্গোডিবি (Mongo DB), মাইক্রোসফট এ্যাকসেস (Microsoft Access) ইত্যাদি ।

1. ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের প্রাথমিক ধারণাঃ-

ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের প্রাথমিক কাজগুলো হলো ;

  • প্রয়োজন অনুযায়ী ডাটাবেজ তৈরি করা,
  • নতুন ডেটা/ রেকর্ড অন্তর্ভুক্ত করা,
  • ডেটার বানান ও সংখ্যার ভুল অনুসন্ধান ও তা সংশোধন করা,
  • নির্দিষ্ট রেকর্ড অনুসন্ধান ও তা সংশোধন করা এবং অপ্রয়োজনীয় ডাটা / রেকর্ড বাদ দেয়া.
  • ডেটা কুয়েরি করা,
  • রিপার্ট তৈরি ও প্রিন্ট করা,
  • প্রয়োজনে সম্পূর্ণ ডাটাবেজ বা ডাটাবেজের অংশবিশেষ প্রিন্ট করা
  • ডেটাবেজ হালনাগাদ (Up to Date/ update) করা ও যথাসম্ভব ডাটা ডুপ্লিকেশন কমানো ।
  • ডেটা সংরক্ষণ করা ইত্যাদি ।

নিচে ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম কি ? ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের প্রাথমিক ধারণার ছবি ;

concept%2Bof%2Bdatabase%2Bmanagement

2. ডাটাবেজের প্রকারভেদ বর্ণনা;

নিচে ডাটাবেজ এর বিভিন্ন উপাদানসমূহ নিচে তুলা ধরা হলো;

  1. ডাটা (Data)
  2. রেকর্ড (Record)
  3. ফিল্ড (Field) এবং
  4. ডাটা টেবিল (Data Table)

বিস্তারিত;

১. ডাটা (Data)

Data শব্দটি ল্যাটিন শব্দ Datum -এর বহুবচন । Datum অর্থ হচ্ছে তথ্যের উপাদান । তথ্যের অন্তর্ভুক্ত ক্ষুদ্রতর অংশসমূহ হচ্ছে ডাটা বা উপাত্ত । ডাটা টেবিলের বিভিন্ন ফিল্ডে আমরা যা কিছু ইনপুট করি তাই ডাটা । উদাহরণস্বরূপ নিচের টেবিলের Ridoy একটি ডাটা যা Name ফিল্ডের অধীনে আছে। Dhaka অন্য একটি ডাটা যা Address ফিল্ডের অধীনে আছে এবং Officer আরেকটি ডাটা যা Job Title ফিল্ডের অধীনে আছে।

২. রেকর্ড (Record)

অনেকগুলো ফিল্ডের সমন্বয়ে গঠিত হয় একটি রেকর্ড । সাধারণভাবে পুরো একটি সারিকেই আমরা রেকর্ড হিসেবে বিবেচনা করি । যদি কোন টেবিলে গ্রাহকের নাম ও ঠিকানা লিপিবদ্ধ থাকে তবে সে গ্রাহকের নাম ও ঠিকানা মিলে হবে একটি রেকর্ড। এরকম যতজন গ্রাহকের নাম – ঠিকানা একটি টেবিলে লিপিবদ্ধ থাকবে সে টেবিলে ততগুলো রেকর্ড আছে বলে ধরা হবে।

৩. ফিল্ড (Field)

রেকর্ডের ক্ষুদ্রতম অংশ হলো ফিল্ড । রেকর্ডের প্রতিটি উপাদান যেমন- নাম , ঠিকানা , টেলিফোন নম্বর ইত্যাদিকে এক একটি ফিল্ড হিসেবে ধরা হয় । প্রতিটি ফিল্ড সাধারণত কলাম হেডিং হিসেবে থাকে । কলামের একটি সেলের (Cell) ডাটাকে আমরা একটি ফিল্ড হিসেবে ধরি এবং পুরো কলামটিতে থাকে একই ধরনের ডাটা ।

৪. ডাটা টেবিল (Data Table)

সমজাতীয় সকল ডাটাকে এক একটি টেবিলে সংরক্ষণ করে রাখা হয় । ধরা যাক, একটি অফিসের তিনটি শাখা আছে, যথা- প্রশাসন শাখা, হিসাব শাখা ও বিক্রয় শাখা। প্রশাসনিক কর্মকাণ্ডের জন্য একটি টেবিল নির্দিষ্ট করা আছে যেখানে ঐ শাখার সকল উপাত্ত সংরক্ষিত আছে। হিসাব শাখার জন্য আবার আলাদা একটি টেবিলে অফিসের আয়-ব্যয় বা কর্মচারীদের বেতন, ভাতার হিসাব সংরক্ষিত আছে এবং বিক্রয় শাখার জন্য আর একটি টেবিলে দৈনন্দিন বিক্রয় সংক্রান্ত নথিপত্র লিপিবদ্ধ আছে ।

নিচে ডাটাবেজ ডাটাবেজের প্রকারভেদ বর্ণনার ছবি ;

kinds%2Bof%2BDatabase

3. ডাটা টাইপ বর্ণনা

ডাটা টাইপ বর্ণনা : ডাটাবেজ ডিজাইন করার সময় ডাটাবেজের ফিল্ডের টাইপ অর্থাৎ ফিল্ডে এন্ট্রিকৃত ডাটার টাইপ বা প্রকৃতি নির্ধারণ করতে হয় । ডাটাবেজ ব্যবহারের উদ্দেশ্যের উপর নির্ভর করে ডাটাবেজের অন্তর্ভুক্ত ফিন্ডের নাম, ডাটা টাইপ, ডাটার ফরমেট ও ফিল্ডের দৈর্ঘ্য।

নিম্নে বিভিন্ন প্রকার ফিল্ড টাইপ বা ডাটা টাইপ সম্পর্কে আলোচনা করা হলো;

Text / Character :

সাধারণত বর্ণভিত্তিক ডাটার ক্ষেত্রে এ ডাটা টাইপ ব্যবহার করা যায়। যেমন- Name , Father’s Name, Designation , Address ইত্যাদি। এ ফিল্ডে বর্ণের সাথে সাথে সংখ্যাও লেখা যায়। এ ফিন্ডে সর্বোচ্চ ২৫৬ টি বর্ণ / অঙ্ক ব্যবহার করা যায়। তবে ঐ সব সংখ্যার উপর কোনো গাণিতিক হিসাব-নিকাশ করা যায় না।

Number / Numeric :

সংখ্যাভিত্তিক বা সংখ্যা জাতীয় ডাটার ক্ষেত্রে এ ডাটাটাইপ ব্যবহার করা হয় । এ ফিল্ডে চিহ্নসহ পূর্ণসংখ্যা কিংবা দশমিক সংখ্যা লেখা যায় । এ ফিল্ডে কোনাে বর্ণ লেখা যায় না । এ ফিন্ডের বিভিন্ন ফরমেট হয়ে থাকে । যেমন Byte , Integer , Lonza Integer , Single , Double , Replication ID ইত্যাদি । যেমন : Roll , GPA , Age , Subject code etc.

Auto Number :

এটি একটি Number Data টাইপ ফিল্ড । এ ডাটা টাইপ সাধারণ ধারাবাহিক বা সিরিজ জাতীয় ডাটার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয় । যেমন- Sl No , ID No , Roll No ইত্যাদি । এ ডাটা টাইপের সুবিধা হচ্ছে এই ফিল্ডে ডাটা এন্ট্রি করতে হয় না , স্বয়ংক্রিয়ভাবে ধারাবাহিক ডাটা এন্ট্রি হয়ে যায় ।

Currency :

ইহা একটি Number Data টাইপ ফিল্ড । যে সংখ্যা ভিত্তিক ডাটা দ্বারা কোনাে দেশীয় মুদ্রা বা অর্থ জাতীয় ডাটার ক্ষেত্রে এ ডাটা টাইপ ব্যবহার করা হয় । যেমন- Tuition Fee , Salary , Exam Fee , Service Charge ইত্যাদি।

Data / Time :

তারিখ ও সময় জাতীয় ডাটার ক্ষেত্রে এ ডাটা ০ টাইপ ব্যবহার করা হয় । যেমন- Date of Birth , Joining Date , Admission Date ইত্যাদি ।

Logical :

যে সমল্ড ডাটা কেবলমাত্র হ্যা বা না দ্বারা সম্পূর্ণরূপে প্রকাশ করা যায় , ঐ জাতীয় ডাটার ক্ষেত্রে এ উধঃধ ঞঢ়ব ব্যবহার করা হয় । যেমন : Present – Absent , Married – Unmarried , Skilled – Unskilled ইত্যাদি ।

Memo :

এটি একটি Conditional Data টাইপ অর্থাৎ এ জাতীয় ফিন্ডে বর্ণ , সংখ্যা , চিহ্ন , তারিখ ইত্যাদি ৬৫,৫৩৬ সংখ্যা বর্ণ ব্যবহার করে লেখা যায় । সাধারণত মদ্য ( Remark ) ফিল্ডে যায় । সাধারণত এ ডাটা টাইপ ব্যবহার করা হয় ।

OLE Object :

OLE Object- এর পূর্ণরূপ হচ্ছে Object Linking and Embedding | ফিল্ডের অধীনে টেক্সট, ছব, গ্রাফ বা সাউণ্ড হিসেবে অন্য কোন প্রােগ্রাম যেমন- এমএস ওয়ার্ড , এক্সেলস, পাওয়ার পয়েন্ট, ফটোশপ ইত্যাদি থেকে অবজেক্ট দিতে হলে ঙনলবপঃ হিসেবে দিতে হয় ।

Hyperlink :

কোন ফিল্ডের অধীনে টেক্সট ও নম্বরের কম্বিনেশন ও অন্যান্য কোন প্রোগ্রামের তথ্যকে লিঙ্ক করে দিতে চাইলে এই ধরনের ফিল্ড টাইপ সিলেক্ট করতে হয় ।

Look up wizard :

সরাসরি ডাটা এন্ট্রি না করে কোন লিস্ট থেকে পছন্দকৃত ডাটা ইনপুট করার জন্য এ জাতীয় ফিল্ড ব্যবহার করা হয় ।

নিচে ডাটা টাইপ বর্ণনার ছবি ;

Describe%2Bthe%2Bdata%2Btypes

4. ফিল্ড প্রোপারটিজ :

ফিল্ড প্রপারটিজ বর্ণনাঃ

প্রতিটি ফিল্ডের জন্য কতিপয় প্রোপার্টি থাকে । ডাটা Type- এর উপর নির্ভর করে Field Properties প্রদর্শিত হয় । প্রােপার্টিজ থেকে ফিল্ডের আকৃতি , ডাটাসমূহ কীভাবে প্রদর্শিত ও নিয়ন্ত্রিত হবে তা নির্ধারণ করা হয় । নিচের চিত্রে Text ডাটা টাইপের জন্যে প্রােপার্টিজসমূহ প্রদর্শিত হচ্ছে ।

নিচে কতিপয় প্রোপার্টি নিয়ে আলোচনা করা হলো।

Field size :

ফিল্ডের আকার কত ক্যারেক্টার হবে এখানে তা নির্ধারণ করা যায় ।

Format :

টেক্সট তথ্যাবলি কীভাবে , কি ফরমেটে প্রদর্শিত হবে তা এখান থেকে নির্ধারণ করা যায় । নিচে টেক্সট ফরমেটে ব্যবহারযোগ্য কয়েকটি সিম্বল উল্লেখ করা হলো.

Input Mask :

Text , Number , Date / Time As Currency জাতীয় ডাটার জন্যে Input Input Mask প্রোপার্টি রয়েছে । এ সকল ফিল্ডে কিভাবে ডাটা ইনপুট করা হয়ে থাকে তা Input Mask দ্বারা নিয়ন্ত্রণ করা যায় ।

Caption :

Datasheet view- তে কোনো ফিল্ডের জন্যে হেডিং প্রদর্শন করতে চাইলে এ প্রোপার্টি নির্ধারণ করতে হয় । হেডিং সর্বোচ্চ ২৫৫ ক্যারেক্টার পর্যন্ত হতে পারে ।

Default Value :

Auto number এবং OLE object ব্যতীত সকল ফিল্ডের জন্যে ডিফল্ট ভ্যালু নির্ধারণ করা যায় । কোনো ফিল্ডের জন্যে কোনো কমন ডাটা থাকলে তাকে Default Value হিসেবে উল্লেখ করে দেয়া যায় যাতে রেকর্ড ইনপুট করার সময় উক্ত ফিল্ডে Default Value নিজে থেকে ইনপুট হবে ।

Validation Rule and Validation Text :

প্রত্যেক ফিল্ডের জন্যে উহার নিজস্ব Validation Rule এবং Validation Text প্রপার্টি রয়েছে । ফিল্ডে কোনো ডাটা ইনপুট করার সময় Validation Rule ডাটা কনফার্ম করে । Validation Rule কোনো ডাটা কনফার্ম না করলে তখন Validation Rule প্রদর্শিত হয় ।

Required :

এ প্রপার্টি কোনো ফিল্ডে ডাটা ইনপুট অত্যাবশ্যকীয় কিনা তা নির্ধারণ করে । ডাটা ইনপুট করার সময় এ ডাটাকে Blank রেখে অন্য ফিল্ডে যাওয়া যাবে না ।

ফিল্ড প্রোপারটিজ‘র ছবি;

field%2Bproperities

নিচে অন্যান্য এসাইনমেন্টের লিংক;

ভোকেশনাল নবম-দশম শ্রেণী এসাইনমেন্ট ২০২১ গনিত ১ উত্তর

এসএসসি ভোকেশনাল এসাইনমেন্ট ২০২১- মেশিন অপারেশন টুলস ১

ওয়েবসাইটের পোস্ট থেকে একান্তভাবে বুঝতে কোন প্রকার সমস্যা হলে ইউটিউবে ভিডিও দেখে নিতে পারেন। এবং নিয়মিত সকল এসাইনমেন্ট পেতে আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন।

নিয়মিত সকল এসাইনমেন্ট  এর আপডেটস পেতে এখানে ক্লিক করুন আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিয়ে দিন । 🙂

ধন্যবাদ।

Check Also

দাখিল ৭ম সপ্তাহের ইসলামের ইতিহাস এসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

দাখিল ৭ম সপ্তাহের ইসলামের ইতিহাস এসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

দাখিল নবম-দশম শ্রেনির অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান পর্বের আজকের টপিক দাখিল ৭ম সপ্তাহের ইসলামের ইতিহাস এসাইনমেন্ট উত্তর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *